Science

কমেছে দূষন তাই আকাশে দেখা মিলছে নতুন তারা ও ছায়াপথ এর

কমেছে দূষন তাই আকাশে দেখা মিলছে নতুন তারা ও ছায়াপথ এর

বর্তমানে ঢাকা সহ পৃথিবীর সব দেশ লকডাউনে পরে আছে,তাই দূষন কমে গেছে বেরেছে অক্সিজেনের পরিমান প্রায় ৩০% এর মতন,আকাশের বায়ুমন্ডল তাই এখন একদমই পরিষ্কার এবং ঝকঝকে।
যেখানে লোকেরা এখন বদ্ধ আবাসে আছে,সেখানে এখন চাঁদের আশে পাশে অসংখ্য অজানা এবং নতুন করে অগনিত মুখ এবং তারা রাতের আকাশে এক অবিচ্ছিন্নভাবে দেখা যাচ্ছে।

অন্যদিকে ,আমাদের পার্শ্ববর্তি দেশ এর পশ্চিমবঙ্গ সহ ভারত এখন পুরোপুরি ভাবে ঘরবন্ধি । তাই এই রাতের নীরব প্রকৃতির মাঝেই অজস্র শত সহশ্র নক্ষত্র আকাশে দেখা দিয়েছিলো, যা কখনোই আমরা জানতে পারিনি,যা এর মধ্যে কিছু বা কয়েকটি আমাদের মিল্কিওয়ে গ্যালাক্সির অপর প্রান্ত অন্য কোন ছায়া পথ বা তারো অনেক দূরে।
কলকাতার ইন্ডিয়ান সেন্টার ফর স্পেস ফিজিক্সের (আইসিএসপি) এর গবেষনাইয় গবেষকরা জানিয়েছেন যে , আমাদের  মেদিনীপুরের সীতাপুরে ২৪ ইঞ্চি লেন্সে এই পর্যন্ত বড় টেলিস্কোপের চিহ্নিত হয়নি যা এ যাবত কালে যে সব নক্ষত্র ধরা পরেছে।
আইসিএসপি জ্যোতির্বিদ সন্দীপ চক্রবর্তী জানান , “আমরা অনেকে নতুন অজানা নক্ষত্র খুঁজে পেয়েছি। তবে এর আগে এসব নিয়ে তেমন কোন গবেষনা হয় নি। আগে যদি আমরা ১০০০ মিলিয়ন আলোক উৎস থেকে দূরের কোনও তারা কিংবা নতুন কোন মিল্কিওয়ে খুঁজে পেতাম ,তবে আমাদের এই লকডাউনে আকাশের পরিষ্কারের কারনে আরো ২০০০ মিলিয়ন আলোক উৎসের দূরের অনেক নক্ষত্র আমরা খুব সহজেই খুঁজে পাবো।

কারন খুব উজ্জ্বল নক্ষত্রগুলি আমাদের কাছে থেকে  প্রায় ১৬০০ আলোকবর্ষ দূরে রয়েছে। আমাদের আকাশ বিজ্ঞানীরা মনে করেন যে তারাগুলি খুব হালকা ম্লান খুব দূরে একটি ছায়াপথের দূরত্বে অবস্থান করে রয়েছে।

আর এই সব কিছু সম্ভব হয়েছে আমাদের দূষনের মাত্রা কমার কারনে,আসলে ভাগ্য বিধাতা মাঝে মাঝেই তার সব প্রকৃতি কে সাজিয়ে নিতেই নিএজে নিজেই এমন দূর্দশা করেন যাতে পৃথিবী তার আগের প্রকৃতিক রূপ নিয়ে নিতে পারে।
তাই সবাই ভালো থাকুন,ঘরে থাকুন সব সময়।
ঘরে বসেই রাতের আকাশ দেখুন 😁😁😁😁 

Sabyasachi Dewery

Author | Blogger | Digital Marketing Influencer | Tech Researcher At www.sdewery.me

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button